ads

বিজেপি দল না করায় এক তৃণমূল পরিবারের ছয় সদস্যকে কুপিয়ে খুনের চেষ্টার অভিযোগ উঠল দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে | UBG NEWS

UBG NEWS, মালদা : বিজেপি দল না করায় উচিত শিক্ষা দিতে এক তৃণমূল পরিবারের ছয় সদস্যকে কুপিয়ে খুনের চেষ্টার অভিযোগ উঠল দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে । এই ঘটনায় বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা দলবল নিয়ে হামলা চালিয়েছে বলে আক্রান্ত তৃণমূল কর্মীর পরিবারের অভিযোগ । শনিবার রাত সাড়ে দশটা নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে মানিকচক থানার ধনরাজপুর গ্রামে । রাতেই আক্রান্ত ছয় তৃণমূল কর্মীর মধ্যে চারজনকে ভর্তি করানো হয়েছে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে। বাকি দুইজনের চিকিৎসা চলছে মানিকচক গ্রামীণ হাসপাতাল । 

এই ঘটনায় আক্রান্ত পরিবারের পক্ষ থেকে স্থানীয় বিজেপি কর্মী আদল মন্ডল, স্যামসা মন্ডল , লক্ষ্মণ মণ্ডল, দেবু মন্ডল সহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মানিকচক থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে। ঘটনার পর থেকে পলাতক অভিযুক্তরা।


পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আক্রান্তদের নাম বর্ধ মহালদার (৫০), তার স্ত্রী প্রতিমা মহালদার (৪৫), তাদের দুই ছেলে মেয়ে রাধিকা মহালদার (১৬), মোহন হালদার (২৭) এবং মোহনের স্ত্রী আদুরি মহালদার (২০)। পাশাপাশি বর্ধ মহালদারের এক শ্যালক হরিপদ মহালদার গুরুতর জখম হয়েছেন। মোহন এবং তার স্ত্রী আদুরি মহালদারের চিকিৎসা চলছে মানিকচক গ্রাম হাসপাতালে। বাকিরা মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন।

পুলিশকে অভিযোগে আক্রান্ত তৃণমূল কর্মী বর্ধ মহালদারের আরেক ছেলে তাপস মহালদার জানিয়েছেন, শনিবার রাতে তার বাবা এবং ভাই মোহন মাছ ধরে বাড়ি ফিরছিলেন। সেই সময় এলাকারই বিজেপি কর্মী আদল মন্ডল, স্যামসা মন্ডল দলবল নিয়ে বাবা ও ভাইকে ঘিরে ধরে। বাড়ির সামনে ওরা বাবা ও ভাইকে বিজেপি দল করার জন্য চাপ দিতে থাকে। কিন্তু আমরা প্রথম থেকেই তৃনমূল কংগ্রেস করি। মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি উন্নয়নের সমর্থন করে আমরা এই দলকে ভালোবেসে ফেলেছি। বিজেপি দল আমাদের পক্ষে করা কোন মতেই সম্ভব না । একথা এর আগেও ওদের জানানো হয়েছিল । কিন্তু এলাকার বিজেপি কর্মীরা আমাদের উপর চাপ সৃষ্টি করছিল।

তাপস মহলদার আরও বলেন, বাড়ির সামনে বাবা ও ভাইকে বিজেপি দল না করার জন্যই লাঠি, হাসুয়া দিয়ে অতর্কিত হামলা চালাতে শুরু করে অভিযুক্তরা। রাস্তায় ফেলে কুপিয়ে খুনের চেষ্টা করা হয় বাবা ও ভাইকে । এই পরিস্থিতিতেই আমরা বাড়ি থেকে ছুটে আসি । তখন বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা আমাদের ওপর ব্যাপকভাবে হামলা চালায় । মারধর করার পর রক্তাক্ত অবস্থায় আমরা রাস্তায় পড়ে থাকি । এরপরই পাড়া প্রতিবেশীরা ছুটে এসে আমাদের উদ্ধার করে মেডিকেল কলেজে ভর্তির ব্যবস্থা করেন।

তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা কার্যকরী সভাপতি বাবলা সরকার জানিয়েছেন, বিজেপির এই সন্ত্রাস কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না । পুরো ঘটনার ব্যাপারে মানিকচক থানায় আক্রান্তের পরিবার অভিযোগ দায়ের করেছেন। আমরা এব্যাপারে পুলিশ সুপারের কাছে নালিশ জানাব। অবিলম্বে যাতে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীদের গ্রেপ্তার করা হয়।



বিজেপির জেলা সভাপতি সঞ্জিত মিশ্র জানিয়েছেন, এই ঘটনার পিছনে কারা জড়িত রয়েছে তা বলতে পারব না। তবে বিজেপি দল এই ধরনের ঘটনাকে কোনোভাবেই প্রশ্রয় দেয় না ।হয়তো পারিবারিক কোনো একটা বিবাদ গোলমাল এর ঘটনাটি ঘটে থাকতে পারে। আর সেখানেই বিজেপির নাম জড়িয়ে মিথ্যা অপবাদ দেওয়ার চেষ্টা করছে ওরা।

মানিকচক থানার আইসি দেবব্রত চক্রবর্তী জানিয়েছেন, একই পরিবারের ছয় জনের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। পুরো বিষয়টি তদন্ত শুরু করা হয়েছে । অভিযুক্তরা পলাতক। তাদের খোঁজ চালানো হচ্ছে।

Post a Comment