ads

মুকুল-সব্যসাচীর সাক্ষাতের পরদিনই তৃণমূলের কোর কমিটির বৈঠকে গড়হাজির মেয়র সব্যসাচী! তবে কি... ? I UBG NEWS


ওয়েব ডেস্কঃ  শুক্রবার রাতে তাঁর বাড়িতে গিয়েছিলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। আর এই ঘটনার ঠিক একদিন পরেই তৃণমূলের কোর কমিটির বৈঠকে গড়হাজির রইলেন বিধাননগরের মেয়র সব্যসাচী দত্ত। তাহলে কি এবার তিনি যোগ দিতে পারেন পদ্ম শিবিরে? জল্পনা তুঙ্গে। 

আজ মধ্যমগ্রামে তৃণমূলের জেলা কমিটির কার্যালয়ে লোকসভা ভোট নিয়ে কোর কমিটির বৈঠক ছিল। পরপর তিনটি পর্যায়ে ব্যারাকপুর, দমদম ও বারাসত কেন্দ্রের বৈঠক ছিল। বারাসত কেন্দ্রের বৈঠকে রাজারহাট-নিউটাউনের বিধায়ক তথা বিধাননগরের মেয়র সব্যসাচী দত্তের হাজির থাকার কথা ছিল। কিন্তু, তিনি আসেননি। বিধাননগরের মেয়র ফোনে জানিয়ে দেন, শারীরিক ভাবে অসুস্থ। তাই বৈঠকে হাজির থাকতে পারবেন না। তাঁর অনুপস্থিতিকে কেন্দ্র করে তুমুল জল্পনা শুরু হয়েছে। তাহলে কি সত্যিই BJP-তে যোগ দিতে চলেছেন সব্যসাচী দত্ত? শোভন চট্টোপাধ্যায়ের মতো মুকুল রায়ের "সৌজন্য সাক্ষাতের" তিরে আরও একবার বিদ্ধ হওয়ার মুখে তৃণমূল?

সেই জল্পনাকে উড়িয়ে তৃণমূলের উত্তর ২৪ পরগনা জেলা সভাপতি বলেন, "আমাদের দল থেকে কেউ BJP-তে যাবেন না। আমি দায়িত্ব নিয়ে বলছি, শোভন চট্টোপাধ্যায় বা সব্যসাচী দত্তরা কেউই BJP-তে যোগদান করবেন না। শোভন (শোভন চট্টোপাধ্যায়) তো বলেছেন, সংবাদমাধ্যমে ছিলাম না। এতদিন পরে সংবাদমাধ্যমে এসেছি যখন থেকে যায়।" জ্যোতিপ্রিয়র দাবি, মুকুল রায় সব তৃণমূল নেতার সঙ্গে দেখা করতে পারেন। তাতে তৃণমূলের উপর কোনও প্রভাব পড়বে না। তাঁর কথায়, "আমি তো চাই, মুকুল রায় সবার বাড়িতে আসুন। আমার বাড়িতে ঘুরে যান। দীনেশদার (ত্রিবেদী) বাড়ি ঘুরে যান। নির্মলদার (ঘোষ) বাড়ি ঘুরে যান। সবার বাড়ি ঘুরে যান। যত খুশি ঘুরে যান। কিন্তু, রেজ়াল্ট শূন্য হবে।"  মুকুল রায়কে একহাত নিয়ে তৃণমূলের উত্তর ২৪ পরগনা জেলা সভাপতি বলেন, "দিলীপের (রাজ্য BJP সভাপতি দিলীপ ঘোষ) সঙ্গে লড়াইয়ে মুকুল পিছনে চলে গেছেন। সেজন্য সামনের দিকে আসতে চান। দলের অভ্যন্তরীণ লড়াই চলছে তো। অনেকদিন প্রচারের আলোয় ছিলেন না। প্রচারে থাকতে চান। আমাদের কোনও ক্ষতি নেই। আমাদের দল থেকে একটা লোকও বেরোবে না। ১০০ শতাংশ গ্যারান্টি দিয়ে বলছি।"

অপর  দিকে মুকুল রায় দাবী করছেন ভোটের টিকিট দেওয়া শুরু হলে অনেকেই বিজেপি তে যোগ দেবার জন্য আসবেন। তবে তিনি সব্যসাচী বাবুর ব্যাপারে কিছু বলেননি সাংবাদিকদের। শুধু বলেছেন সৌজন্য দেখা করা। উনি আমার ভাই এর মতো। কিন্তু রাজনৈতিক মহল বলছেন মুকুল বাবু যাবার পরদিনই তিনি দলীয় মিটিংএ অনুপস্থিত হয়ে গেলেন। এটা শুধু শুধু নয়। হইত এটাতে থাকতে পারে নতুন অঙ্ক।কারণ সূত্রের খবর, বিজেপির তরফে সব্যসাচীকে বারাসত থেকে লোকসভা নির্বাচনে প্রার্থী করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে এবং সেই প্রস্তাব নিয়েই শুক্রবার রাতে তাঁর বাড়িতে যান মুকুল রায়।

Post a Comment