ads

মোবাইল নিয়ে ধরা পড়ে সব পরীক্ষা বাতিল I UBG NEWS

ওয়েব ডেস্কঃ  মোবাইল–‌সমেত ধরা পড়ায় ফের এক পরীক্ষার্থীর সব পরীক্ষা বাতিল করল উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। মালদার এক পরীক্ষা কেন্দ্রে নকল করতে না দেওয়ায় শিক্ষকদের মারধর করার অভিযোগ উঠল পরীক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে।
মঙ্গলবার ছিল উচ্চমাধ্যমিকের অঙ্ক, মনস্তত্ত্ব, নৃতত্ত্ব, ইতিহাস ও কৃষিবিদ্যার পরীক্ষা। সংসদ সভাপতি মহুয়া দাস এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, ‘‌পূর্ব বর্ধমানের মেমারি অঞ্চলের একটি ভেনুতে পরীক্ষার হলে এক পরীক্ষার্থীর কাছ থেকে মোবাইল পাওয়ায় তার এ বছরের সব পরীক্ষা বাতিল করা হচ্ছে।’
এদিকে এদিন পরীক্ষায় নকল করতে না দেওয়ায় ধুন্ধুমার কাণ্ড ঘটে মালদার সাহাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে৷ পরীক্ষা শেষে রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় স্কুল–‌প্রাঙ্গ‌ণ। শিক্ষকদের মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ওই স্কুলে এবার ওসমানিয়া হাই মাদ্রাসার পড়ুয়াদের পরীক্ষা কেন্দ্র। নিয়মিত পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে বহিরাগত পরীক্ষার্থীরাও পরীক্ষা দিচ্ছে ওই কেন্দ্রে৷ শুধু নকলই নয়, হলে পড়ুয়াদের ইচ্ছেমতো বসতে দেওয়ার ‘‌অন্যায় আবদার’ও‌ করে হাই মাদ্রাসার অনেক পড়ুয়া৷ তা নিয়ে শিক্ষকেরা প্রতিবাদ জানালে শিক্ষকদের ওপরে চড়াও হয় পরীক্ষার্থীরা৷ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান পুরাতন মালদার বিডিও জয়িতা খাটুয়া৷ স্কুলের শিক্ষক প্রদীপ বিশ্বাস বলেন, ‘‌পরীক্ষার্থীরা নিজেদের ইচ্ছেমতো পরীক্ষার হলে বসতে চাইছিল৷ কিন্তু তাদের দাবি মানা হয়নি৷ এ ছাড়াও কড়া গার্ড দেওয়ায় পরীক্ষা শুরুর দিন থেকে ক্ষোভে ফুঁসছিল ওরা। আজও শুরু থেকেই পড়ুয়াদের আচরণ সন্দেহজনক ছিল। পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর তারা শিক্ষকদের ওপর হামলা চালায়৷ এক শিক্ষক আহত হয়েছেন৷’‌ অভিযোগ উঠেছে, পুলিশের সামনেই শিক্ষকদের নিগ্রহ করেছে ওই পড়ুয়ারা। পরীক্ষার খাতা লুঠের চেষ্টা চালানো হয় বলেও অভিযোগ৷ যদিও সংসদ সভাপতি ওই বিবৃতিতে জানিয়েছেন, এদিনের সব পরীক্ষা নির্বিঘ্নে হয়েছে। মোবাইল নিয়ে ধরা পড়া ছাড়া কোনও অঞ্চল থেকে কোনও অভিযোগ আসেনি।

Post a Comment

0 Comments