ads

পরেশের হয়ে প্রচারে পার্থপ্রতিম, প্রার্থীর হয়ে দেওয়াল লিখলেন বিদায়ী সাংসদ পার্থ I UBG NEWS


১৪ মার্চ : লোকসভা নির্বাচনে টিকিট পাননি। তারপর তাঁর অন্য দলে যোগদান নিয়ে জল্পনা ছড়ায়। সেই জল্পনা খারিজ করে দলীয় প্রার্থীর হয়ে ভোটের প্রচারে নামলেন কোচবিহারের বিদায়ি তৃণমূল সাংসদ পার্থপ্রতিম রায়।

প্রচারে নেমেই তিনি বিজেপিকে দেউলিয়া বলে আক্রমণ করলেন। তারপর দলের প্রার্থী পরেশ অধিকারীর হয়ে দেওয়াল লিখলেন তৃণমূলের বিদায়ী সাংসদ পার্থপ্রতিম রায়।

টিকিট না পেয়েভাটপাড়ার তৃণমূল বিধায়ক অর্জুন সিং বিজেপি তে যোগ দিয়েছেন। তিনিও অন্য দলে যাবেন কি না, তা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। তার জবাবে পার্থপ্রতিম রায় বলেন, দলের একনিষ্ঠ সৈনিক তিনি। কোচবিহার আসনের প্রার্থী পরেশচন্দ্র অধিকারীর সমর্থনেই লড়াইয়ে শামিল হবেন।
 
কোচবিহারে দলের ছাত্র-যুবদের নিয়ে একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনের আগে ভোটের প্রচার কী ভাবে করা হবে তাই নিয়েই বিস্তারিত আলোচনা করেন বিদায়ি সাংসদ। তিনি বলেন, " জল্পনা কখনও বাস্তব হয় না। আমি তৃণমূল কংগ্রেসের একজন বিশ্বস্ত সৈনিক। দলনেত্রী মমতা ব্যানার্জি যদি আমাকে কোনও একটি পার্টি অফিসের কর্মী হিসেবেও নিয়োগ করেন, আমি সেটাই করব। আমি এই মানসিকতা ও দৃঢ়তা নিয়েই দল করছি। আগামীদিনেও করব। দলের মনোনীত প্রার্থী পরেশচন্দ্র অধিকারীর সমর্থনেই আমি প্রচারে নামব।" সভায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কোচবিহার দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক মিহির গোস্বামী, তৃণমূল যুবনেতা অভিজিৎ দে ভৌমিক, ছাত্র-পরিষদ নেতা সায়নদীপ গোস্বামী।

অল্প সময় বক্তব্য রেখে তিনি দলের প্রার্থীকে বিপুল ভোটে জেতানোর ডাক দেন। তিনি বলেন, “বিজেপি দেউলিয়া পার্টি। প্রার্থী না পেয়ে এখানে ওখানে হাতড়ে বেড়াচ্ছে। তৃণমূল রাজ্যের ৪২টি আসনেই জয়ী হবে।” সেই সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দেশের প্রধানমন্ত্রীর অন্যতম দাবিদার হয়ে উঠবেন বলেও তিনি দাবি করেন। সভায় ছিলেন কোচবিহার দক্ষিণ কেন্দ্রের তৃণমূল বিধায়ক মিহির গোস্বামীও।

পার্থবাবু যুব তৃণমূলের কোচবিহার জেলা সভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন। এ দিন তিনি জানান, যুব সংগঠনের পক্ষ থেকেও দলের প্রার্থীর হয়ে ধারাবাহিক কর্মসূচি নেওয়া হবে। যুব তৃণমূলের কোচবিহার টাউন কমিটির পক্ষ থেকে শহরে চারটি মিছিল এবং একাধিক পথসভার কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে।

এদিনের সভায় উপস্থিত থাকা আরেক যুব তৃণমূলের নেতা অভিজিৎ দে ভৌমিক বিজেপির বিরুদ্ধে সেনা নিয়ে রাজনীতির অভিযোগ তুলেছেন। বিজেপি অবশ্য তৃণমূলের এমন অভিযোগকে গুরুত্ব দিতে নারাজ। বিজেপি নেতা দীপ্তিমান সেনগুপ্ত বলেন, “তৃণমূল কী করছে তা মানুষ দেখছেন। আর কয়েকদিনের মধ্যে তাঁরা সে জবাব পেয়ে যাবেন।”

মঙ্গলবার তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জি লোকসভা নির্বাচনের জন্য দলের তরফে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছেন। তালিকায় নাম নেই কোচবিহারের বিদায়ি সাংসদ পার্থপ্রতিম রায়ের। কিছুদিন আগেই ফরওয়ার্ড ব্লক ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়া প্রাক্তন মন্ত্রী পরেশচন্দ্র অধিকারীকে কোচবিহারের প্রার্থী করা হয়। তবে দলীয় সূত্রে খবর, কোচবিহার জেলার তৃণমূল সভাপতি তথা মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষের সঙ্গে বিরোধিতার কারণেই এবারে পার্থপ্রতিম রায়কে প্রার্থী করা হয়নি। এরপর থেকেই জল্পনা চলছিল যে তিনি BJP-তে যোগ দিতে পারেন। আজ দুপুরে সব জল্পনা উড়িয়ে দলীয় প্রার্থীর হয়ে ভোট প্রচারে নামলেন তিনি।
 

Post a Comment