ads

নজরদারি শুরু হল কমিশনের ফ্লাইং স্কোয়াড, ভিডিও টিমের I UBG NEWS


ওয়েব ডেস্কঃ  নির্বাচন কমিশনের ফ্লাইং স্কোয়াড এবং ভিডিও টিম নেমে পড়েছে। রবিবার নির্বাচনের নির্ঘণ্ট ঘোষণা করা হয়। সেই সঙ্গে নির্বাচনী আচরণবিধি লাগু হয়ে যায়। সরকারি রাস্তায়, বুলেভার্ডে যে সব সরকারি হোর্ডিং, ব্যানার রয়েছে, সেগুলি সব সরিয়ে ফেলতে হবে। বেসরকারি জায়গায় কেউ হোর্ডিং বা ব্যানার দিয়ে থাকলে সেটা মালিকের অনুমতি আছে কিনা দেখা হবে। বেসরকারি জায়গার ক্ষেত্রে সুনির্দিষ্টভাবে অভিযোগ এলে কমিশন গুরুত্ব দিয়ে দেখবে। অতিরিক্ত মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক সঞ্জয় বসু সোমবার সাংবাদিক বৈঠকে দিল্লির নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ জানিয়েছেন।
এদিন মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক ড.‌ আরিজ আফতাব স্বীকৃত রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠকে ছিলেন তৃণমূলের পার্থ চ্যাটার্জি, সুব্রত বক্সি, বিজেপি–‌র প্রভাকর চ্যাটার্জি, জয়প্রকাশ মজুমদার, বামফ্রন্টের রবীন দেব, সুখেন্দু পাণিগ্রাহী, প্রবীর দেব। পার্থ বলেন, ‘‌এই নির্বাচনকে দীর্ঘায়িত করা হয়েছে। পরম্পরাগত অনুষ্ঠানের কথা না ভেবেই নির্ঘণ্ট তৈরি করা হয়েছে। ইভিএমের সঙ্গে ভিভিপ্যাটের ভোটও গণনা করতে হবে। ভোট শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করতে রাজ্য সরকার সবরকমভাবে সাহায্য করবে।’‌ বিজেপি–‌র জয়প্রকাশ মজুমদার বলেন, ‘‌প্রত্যেক ভোটার যাতে ভোট দিতে পারেন তার ব্যবস্থা নির্বাচন কমিশনকে করতে হবে। অনেক জায়গাতেই থানার ওসি, আইসি, পুলিশ সুপার টানা তিন বছর কাজ করছেন। তাঁদের বদলি হয়নি। গুন্ডা দমন এবং অস্ত্র উদ্ধার করতে হবে।’‌ বামফ্রন্টের রবীন দেব বলেছেন, ‘‌শুধুমাত্র কেন্দ্রীয় বাহিনী দিলেই চলবে না, ভোটপ্রক্রিয়া নিয়ন্ত্রণ করতে হবে দিল্লির নির্বাচন কমিশনকে।’‌ তাঁর দাবি, যে সব অফিসারের বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকা সত্ত্বেও কার্যকালের মেয়াদ বৃদ্ধি করা হয়েছে, তাঁদের নির্বাচনের কাজে যুক্ত করা যাবে না। এই সর্বদলীয় বৈঠকে ছিলেন কংগ্রেসের দেবব্রত বসু এবং প্রশান্ত দত্ত। তাঁরা বলেন, রাজ্য নির্বাচন কমিশনের কাজে সন্তুষ্ট নন। অনুব্রত মণ্ডল সম্পর্কেও তাঁরা অভিযোগ করেন।
অতিরিক্ত মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক সঞ্জয় বসু বলেন, সর্বদলীয় বৈঠকে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল যে সব অভিযোগ করেছে, সেগুলো দিল্লির নির্বাচন কমিশনে পাঠানো হচ্ছে। সাংবাদিকরা সিভিজিল সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘‌ভোটের বিজ্ঞপ্তি জারি হলেই সিভিজিল কার্যকর হবে।’‌‌

Post a Comment