ads

উচ্চ প্ৰাথমিকের দ্বিতীয় দফায় প্রকাশিত রেজাল্ট নিয়ে ধন্দে চাকরি প্রার্থীরা I UBG NEWS

ওয়েব ডেস্ক : স্কুল সার্ভিস কমিশন প্রকাশিত উচ্চ প্ৰাথমিকের দ্বিতীয় দফার রেজাল্ট নিয়ে মহা ধন্দে পড়েছে চাকরিপ্রার্থীরা। দীর্ঘ দাবিদাওয়ার পর বৃহস্পতিবার অষ্টম শ্রেণীতে নিয়োগের জন্য আপারের দ্বিতীয় ফেজের ফলাফল প্রকাশ করে কমিশন। কিন্তু সেই রেজাল্ট নিয়ে নানা সংশয় দেখা দিয়েছে পরীক্ষার্থীদের মধ্যে।

প্রথম দফায় প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি অনুসারে নিজেদের রোল নম্বর ও জন্ম তারিখ সাবমিট করলেই সম্পূর্ণ রেজাল্ট দেখতে পেয়েছিল পরীক্ষার্থীরা। কোন পরীক্ষার্থী ডকুমেন্টস ভেরিভিকেশনে ডাক পেয়েছে কিনা নাম ও রোল নম্বর সহ সব তথ্যই স্পষ্ট ছিল সেখানে। কিন্তু দ্বিতীয় ফেজে প্রকাশিত রেজাল্টে সম্পূর্ণ তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না এমনটাই অভিযোগ পরীক্ষার্থীদের।

পরীক্ষার্থীরা বলছেন, দ্বিতীয় দফায় ওয়েবসাইটের নির্দিষ্ট অংশে পরীক্ষার্থীর এপ্লিকেশন আইডি ও জন্ম তারিখ সাবমিট করলেই বেশির ভাগ পরীক্ষার্থীরই ভেসে উঠছে ‘এনটার্ড ডিটেইলস ডাজ নট ম্যাচ’ অর ‘ইউ আর নট কল্ড ফর সেকেন্ড ফেজ ভেরিফিকেশন।’ কিন্তু সেই রেজাল্টে পরীক্ষার্থীর নাম, এপ্লিকেশন আইডি কিংবা জন্ম তারিখ কিছুই লেখা থাকছে না। ফলে প্রকাশিত ঐ রেজাল্টে পরীক্ষার্থীর থাকছেনা কোন নির্দিষ্ট তথ্য। আর এখানেই মহা ধন্দে পড়েছে পরীক্ষার্থীরা।

২০১৬ সালের আপারের পরীক্ষার্থী সৌমিত্র সর্দারের ক্ষোভ, বহু প্রতীক্ষিত আপারের সেকেন্ড ফেজ নিয়ে সন্তুষ্ট হতে পারলাম না। চাকরি পেলাম না তার জন্য নয়। বরং নিজের এপ্লিকেশন আইডি ও জন্ম তারিখ ঠিক মত সাবমিট করতে পারলাম কি না সেটাই বুঝতে পারছি না। কারন যখন উক্ত দুটি তথ্য দিয়ে সাবমিট করা হচ্ছে তখন কারোর ‘কল্ড ফর সেকেন্ড ফেজ ভেরিফিকেশন’ দেখাচ্ছে, আবার বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ‘এনটার্ড ডিটেইলস ডাজ নট ম্যাচ, অর ইউ আর নট কল্ড ফর সেকেন্ড ফেজ ভেরিফিকেশন’ দেখাচ্ছে।

দ্বিতীয় ফেজে যারা ডাক পেয়েছেন তাদের ক্ষেত্রে ঠিকই আছে। কিন্তু যাদের দ্বিতীয় লেখাটি দেখাচ্ছে তারা তো মহা মুশকিলে পড়েছেন। কারন তারা বুঝতেই পারছেন না যে তাদের তথ্য ঠিক মতো দিতে পেরেছেন কী না।
খাবির বিশ্বাস বলছিলেন, যারা ডাক পায় নি তাদেরকে সরাসরি ‘নট কল্ড ফর সেকেন্ড ফেজ ভেরিফিকেশন’ এবং যারা ভুল তথ্য সাবমিট করছে তাদের ‘এনটার্ড ডিটেইলস ডাজ নট ম্যাচ’ দেখালেই পারত। কিন্তু কমিশন যে ভাবে রেজাল্ট দেখার পদ্ধতি বানিয়েছে তাতে এভাবেই ধন্দে পড়তে হচ্ছে আমার মত অনেক পরীক্ষার্থীকেই।

অন্যদিকে কৃষ্ণেন্দু ঘোষের অভিযোগ, কেন ফার্স্ট ফেজ ভেরিফিকেশনের মতো সেকেন্ড ফেজ ভেরিফিকেশনেও ‘কল্ড ফর সেকেন্ড ফেজ ভেরিফিকেশন’ বা ‘নট কল্ড ফর সেকেন্ড ফেজ ভেরিফিকেশন’ দেওয়া হল না বুঝতে পারছিনা। কি করে বুঝবো আমি কি সত্যিই ডাক পেলাম না নাকি আমার দেওয়া তথ্য ভুল?

Post a Comment

0 Comments