ads

গুজব ও গণপিটুনি রুখতে সোশ্যাল মিডিয়ায় নজরদারি,নবান্নে ‘মনিটরিং সেল’ I UBG NEWS

ওয়েব ডেস্কঃ  রাজ্যে ইদানিং গণপিটুনির ঘটনা বেড়ে চলছে। এই প্রবণতা রুখতে পুলিশকে কড়া হাতে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যা। গ্রেফতারের সংখ্যাও বাড়ছে। এই অবস্থায় গুজব আটকাতে নবান্নে চালু হল বিশেষ মনিটারিং সেল। মূলত সোশ্যাল মিডিয়ায় নজরদারি চালাবে এই সেল। সেখানে কোনওরকম প্ররোচনামূলক পোস্ট দেখলে তৎক্ষণাৎ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে তো বটেই, খাস কলকাতাতেই চোর সন্দেহে গণপিটুনির ঘটনার বিরাম নেই। পুলিশের সতর্কতা সত্ত্বেও হুঁশ ফিরছে না। এনিয়ে চিন্তার ভাঁজ বাড়ছে প্রশাসনের কপালে। রাজ্যুজড়ে এসব অশান্তি রুখতে শনিবারই নবান্নে সব জেলার পুলিশ সুপার, কমিশনারদের নিয়ে বৈঠকে বসেছেন রাজ্য পুলিশের ডিজি। তার আগেই নবান্ন থেকে সোশ্যাল মিডিয়ার উপর নজরদারি রুখতে চালু হল মনিটরিং সেল। সূত্রের খবর, রাজ্যের প্রতিটি কমিশনারেটের মতো থানাতেও রাখা হবে সাইবার ক্রাইম সেল। এদের সঙ্গে সমন্বয় রেখে কাজ করবে ওই মনিটারিং সেল। এই সেলের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বিশেষ আধিকারিকদের। সোশ্যাল মিডিয়ায় উসকানিমূলক পোস্ট দেখলে এবং তা কোনও অশান্তিতে ইন্ধন জোগাতে পারে মনে করলে, ট্র্যাক করে তার বিরুদ্ধে সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।সোশ্যাল মিডিয়ার 

নজরদারিতে এই মনিটারিং সেল কাজ করতে সরাসরি রাজ্য পুলিশের কন্ট্রোল রুম থেকে। সাইবার সেল, বিভিন্ন থানা থেকে পাওয়া তথ্য নিয়ে পদক্ষেপ নেওয়া হবে। সেই লক্ষ্যে সাইবার সেলগুলিকে আরও শক্তিশালী করা হচ্ছে। এর আগেও সোশ্যাল মিডিয়ার পোস্টের ভিত্তিতে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে অশান্তি ছড়িয়েছে। দুষ্কৃতীদের হামলা চলেছে। অশান্তি, আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। সেসময়েও এসব রুখতে কড়া হাতে রাশ টেনেছিল নবান্ন। এবারের সমস্যা আরও প্রকট। পুলওয়ামা হামলা পরবর্তী সময়ে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে নানা ধরনের অশান্তি ঘটেই চলছে। তার রেশ যাতে এরাজ্যে এসে না পড়ে, তার জন্যই এই মনিটরিং সেল তৈরি করা হয়েছে নবান্নের তরফে।    

পুলওয়ামা কাণ্ডের পর থেকে এই গুজব প্রবণতা বেড়েছে কয়েকগুণ। আক্রান্ত হচ্ছেন কাশ্মীরিরা। কয়েকদিন আগেই মুখ্যমন্ত্রী প্রশাসনকে এই ব্যাপারে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন। এখনও পর্যন্ত এই জাতীয় ঘটনায় গ্রেফতার হয়েছে ৪০ জন৷

Post a Comment

0 Comments