ads

পাক হামলার জবাব দিতে ফের তিন বাহিনীকে পূর্ণ স্বাধীনতা দিলেন মোদী I UBG NEWS

নয়াদিল্লি: সীমান্ত পার করে ভারতের আকাশে ঢুকে পড়েছিল পাক বিমানল একাধিক জায়গায় বোমাও ফেলেছে সেইসব বিমান। অন্যদিকে, পাকিস্তানের হেফাজতে রয়েছেন বায়ুসেনার পাইলট অভিনন্দন।

এই পরিস্থিতিতে ফের একবার সেনাবাহিনীকে পূর্ণ স্বাধীনতা দেওয়ার কথা বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বুধবার সন্ধেয় দেড় ঘণ্টা বৈঠকে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে সূত্রের খবর। নয়াদিল্লিতে তিন সেনার প্রধানের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক করেন মোদি। বৈঠকে ছিলেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল। দফায় দফায় বৈঠক শেষে ফের সেনাবাহিনীকে প্রধানমন্ত্রী জানিয়ে দিয়েছেন, পাক সেনার হামলার জবাব নিজেদের মতো করেই দিতে পারে সেনা। ভারতীয় সেনাবাহিনীকে পূর্ণ স্বাধীনতা দেওয়া হয়েছে।

এদিন সকালে পাকিস্তান সেনা ভারতীয় বায়ু সীমা অতিক্রম করে ভারতে ঢোকার চেষ্টা করে। ভারতের সীমা অতিক্রম করে সামরিক ঘাঁটিতে হামলা চালানোর পরিকল্পনা ছিল পাকিস্তানের। কিন্তু ভারতীয় সেনার যোগ্য জবাবে পাকিস্তানের এই অপচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। কিন্তু পাক সেনার এই অপচেষ্টাকে মোটেই ভালভাবে নিচ্ছে না নয়াদিল্লি। এই হামলার পরই আজ দিনভর দফায় দফায় তিন সেনার প্রধানদের সঙ্গে বৈঠক করেন মোদি। বৈঠকে তিন সেনাপ্রধান প্রধানমন্ত্রীকে নিরাপত্তা পরিস্থিতি সম্পর্কে বিস্তারিত রিপোর্ট দিয়েছেন। পাক হামলা সম্পর্কেও বিস্তারিত জানানো হয়েছে। সূত্রের খবর, প্রধানমন্ত্রী সেনাকে পূর্ণ স্বাধীনতা দিয়েছেন নিজেদের মতো এই হামলার জবাব দেওয়ার। কোনওরকম চাপের কাছে মাথা নোয়াবে না ভারত, জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এতদিন পর্যন্ত ভারত শুধু পাকিস্তানের জঙ্গিদেরই জবাব দিচ্ছিল। এবার পাক সেনাকেও জবাব দেওয়ার অনুমতি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী, এমনটাই সূত্রের খবর।

পাকিস্তান দাবি করে তারা এক ভারতীয় পাইলটকে গ্রেফতার করেছে।এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ভারত-পাক উত্তেজনা তৈরি হওয়ার পরই ফের বৈঠকে বসেন নরেন্দ্র মোদী। ছিলেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল।

বুধবার সারাদিন ধরে দুই ভারতীয় বিমানকে গুলি করে নিচে নামানোর নাটক করে গিয়েছে পাক সেনা৷ পাক সেনার মুখপাত্র জেনারেল আসিফ গফুর দুপুর ১টা নাগাদ সাংবাদিক বৈঠক করে বলে দেয় দুই ভারতীয় যুদ্ধ বিমান এবং দুই দুই পাইলটকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ এক ধাপ এগিয়ে গফুরের দাবি, ‘‘এক পাইলটকে বন্দী করা হয়েছে এবং অন্য এক পাইলটকে আহত অবস্থায় সেনা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে৷’’ ৬ ঘন্টা পর ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে মাত্র গফুরের দাবি, ‘‘একজন পাইলটই পাক সেনার হেপাজতে রয়েছে৷ উইং কমান্ডার অভিনন্দন৷ মিলিটারি রীতিনীতি অনুযায়ী তাঁর সঙ্গে ব্যবহার করা হয়েছে৷’’

ভারত যেখানে সন্ত্রাসবাদীদের গুড়িয়ে দেওয়ার উদ্দেশ্য পাক বায়ুসীমা অতিক্রম করেছিল, সেখানে পাকিস্তান সরাসরি হামলা চালালো ভারতীয় সামরিক বাহিনীর উপর। যুদ্ধের অভিসন্ধি যদি না’ই থাকবে, তাহলে কেন ভারতীয় সেনার উপর হামলা, প্রশ্ন তুলছে ভারত। কূটনৈতিক মহল বলছে, আসলে একদিকে কাপুরুষের মতো হামলা অন্যদিকে মুখে শান্তির বাণী দিয়ে নিজেদের দ্বিচারিতায় প্রকাশ করে দিচ্ছে পাকিস্তান। আর পাকিস্তানের এই দ্বিচারিতারই যোগ্য জবাব দেওয়ার জন্য প্রস্তুত হচ্ছে ভারতীয় সেনা।

Post a Comment

0 Comments