ads

কিষাণ প্রকল্পের সুবিধা পৌঁছে দিতে উদ্যোগ নেয়নি রাজস্থানের কংগ্রেস সরকার, রাজস্থানের চুরু থেকে তাঁর সরকারকে ভোট দেওয়ার আবেদন মোদীর I UBG NEWS

ওয়েব ডেস্ক : রাজস্থানের চুরুতে এসে রাজ্যের কংগ্রেস সরকারকে এক হাত নিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। নিজের সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পের কথা উল্লেখ করার পশাপাশি কংগ্রেসকে নিশানা করতে ছাড়লেন না মোদী। তাঁর কথায়, উত্তর প্রদেশের গোরক্ষপুরে তিনি কিষাণ বিকাশ প্রকল্পের সূচনা করেছেন। রাজস্থানের কৃষকরা এখনো এই সুবিধা থেকে বঞ্চিত। কারণ গরিব কৃষকদের তালিকা এখনো পৌঁছে দেয়নি কংগ্রেস সরকার।
এখানেই থেমে না থেকে তিনি আরো বলেন, রাজনীতি করতে গিয়ে রাজস্থান সরকার যেন কৃষকদের ক্ষতি না করেন। মোদী আরো উল্লেখ করেন, এই প্রকল্পের জন্য বরাদ্দ ৭৫০০০ কোটি টাকা। এর জন্য কৃষকদের কিচ্ছু করতে হবে না। তাঁদের অ্যাকাউন্টে টাকা জমা হয়ে যাবে। তাঁরা নির্দিষ্ট সময় মোবাইলে মেসেজ পেয়ে যাবেন। তারপর সেই টাকা নিজেদের সুবিধা মতো ব্যবহার করতে পারবেন। মোদী আরো বলেন, ১ ফেব্রুয়ারি বাজেটে আমরা এই প্রকল্পের কথা ঘোষণা করি। তখন অনেকে বলেছিলেন, না মুমকিন হ্যায়, অর্থাৎ অসম্ভব। আমি বলি মুমকিন, অর্থাৎ সম্ভব। কারণ মোদী সরকার আছে। সেই ঘোষণার ২৫ দিনের মধ্যে প্রথম কিস্তি পৌঁছাতে শুরু করেছে।
আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প নিয়েও রাজনীতি হচ্ছে বলে অভিযোগ মোদীর। এব্যাপারেও তিনি রাজ্যের কংগ্রেসের সরকারের দিকে আঙুল তুলেছেন। তাঁর মতে কংগ্রেস সরকারের জন্য গরিব মানুষ এই সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।
সবকা সাথ সবকা বিকাশ। ফের এই স্লোগান সামনে রেখে এদিন রাজস্থানের চুরু থেকে তাঁর সরকারকে ভোট দেওয়ার পক্ষে জোর সওয়াল করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এপ্রসঙ্গে তিনি পরপর নিজের সরকারের প্রকল্পগুলির কথা তুলে ধরেন। আগেও বিরোধীদের জোট প্রয়াসকে মজবুর, কমজোর সরকারের স্বপ্ন বলে কটাক্ষ করেন মোদী। এদিনও সেই প্রবণতা বজায় রাখলেন তিনি।
তাঁর কথায়, আপনাদের শক্তি দেশ দেখেছে, যে শক্তি দিল্লিতে একটা মজবুত সরকার প্রতিষ্ঠা করেছে। আপনারা মজবুর সরকারের স্বপ্ন ভেঙে দিন। মজবুত সরকারের হাত আরো শক্ত করুন। এদিনের মঞ্চ থেকে তাঁর স্লোগান- জয় জওয়ান, জয় কিষাণ, জয় বিজ্ঞান। কৃষকদের জন্য প্রকল্প শুরু হয়েছে গোরক্ষপুর থেকে। সেকথাও উল্লেখ করেন তিনি। পাশাপাশি আয়ুষ্মান ভারত ও প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার কথাও উল্লেখ করেন তিনি। তাঁর সরকার গরিব ও মধ্যবিত্তদের বাড়ির স্বপ্ন পূরণ করতে বদ্ধপরিকর সেকথাও উল্লেখ করেন তিনি। সবশেষে তিনি উপস্থিত জনতাকে তাঁকে আশীর্বাদ করে দিল্লিতে তাঁর সরকার প্রতিষ্ঠার সুযোগ করে দেওয়ার আবেদন করেন।

Post a Comment

0 Comments